• মে ৬, ২০২১
  • Last Update মে ৬, ২০২১ ৪:৪২ অপরাহ্ণ
  • বাংলাদেশ

বরিশালের উজিরপুর গভীর রাতে প্রবাসীর বসতঘরে হামলা, কলেজ ছাত্র আহত

বরিশালের উজিরপুর গভীর রাতে প্রবাসীর বসতঘরে হামলা, কলেজ ছাত্র আহত

বরিশালের উজিরপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে গভীর রাতে প্রবাসীর বসত ঘরে হামলা, কলেজ ছাত্র গুরুতর আহত হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভুক্তভোগী পরিবার সুত্রে জানা যায় উপজেলার উত্তর সাতলা গ্রামের প্রভাবশালী মিন্টু গংদের সাথে একই বাড়ীর এবায়দুল মিয়া গংদের জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এমনকী বিরোধীয় জমি দখলের মিশনে নেমেছে মিন্টু মিয়া গংরা। উভয় পক্ষের মধ্যে একাধিক মামলা চলমান রয়েছে। উক্ত জমি জোরপুর্বক দখল করার জন্য বিভিন্ন ভয়ভীতি ও নারী নির্যাতন মামলায় জড়ানোর হুমকী দিয়ে আসছে এবায়দুল মিয়া গংদেরকে।

এরই ধারাবাহিকতায় ৬ এপ্রিল রাত ১১টায় মিন্টু মিয়া গংরা দেশীয় অস্ত্র সাজে সজ্জিত হয়ে একদল ভারাটিয়া সন্ত্রাসী নিয়ে এবায়দুল মিয়ার ভাই প্রবাসী বাদশা মিয়ার বসতঘর ভাংচুর ও তান্ডব চালায়। এর প্রতিবাদ করলে প্রবাসী বাদশা মিয়ার ছেলে কলেজ ছাত্র ছাব্বির হোসেন মিয়া(১৮)কে লোহার রড দিয়ে এলোপাথারী ভাবে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে। এসময় ডাকচিৎকার করলে বাড়ীর লোকজন ঘটনাস্থল ছুটে আসার টের পেয়ে হামলাকারীরা পরবর্তীতিতে এলাকা থেকে উৎখাত ও প্রানে মেরে ফেলার হুমকী দিয়ে চলে যায়।

আহত ছাত্রকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে আগৈলঝাড়া হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় এলাকায় চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলা হয়নি তবে প্রস্তুতি চলছে। এব্যাপারে আহত’র চাঁচা এবায়দুল মিয়া জানান আমাদের দলিলকৃত শেষ সম্বল ভিটে-মাটি দখল করার জণ্য উঠে পরে লেগেছে ভ‚মিদস্যু সন্ত্রাসী মিন্টু মিয়া গংরা। একের পর এক আমাদের পরিবারের উপর হামলা চালাচ্ছে এবং উল্টো আমাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন মহলে অপপ্রচার চালিয়ে মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে হয়রানি করছে।

এছাড়াও আমাদের বিরুদ্ধে অন্যায় ভাবে ইতিপূর্বে নাটক সাজিয়ে আদালতে একটি চাদাঁবাজীর মামলা দায়ের করে হয়রানি করে। অন্যের জমি দখল করা তাদের নেশা ও পেশা। মিন্টু মিয়া গংরা এলাকায় ভ‚মিদস্যু নামে সুপরিচিত। আহত কলেজ ছাত্র ছাব্বির হোসেন মিয়া জানান জমি-জমা নিয়ে মিন্টু মিয়া গংরা আমাদের বসতঘরে হামলা চালায় এবং একা পেয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে পিটিয়ে রক্তাক্ত যখম করে। অল্পের জন্য আমার শেষ রক্ষা হয়। অভিযুক্ত মিন্টু মিয়ার সাথে মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করতে চাইলে মুঠোফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। অফিসার ইনচার্জ মোঃ জিয়াউল আহসান জানান বিষয়টি জানা নেই তবে থানায় আসলে অভিযোগ নিয়ে ঘটনাটি তদন্ত পূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। ওই ভ‚মিদস্যু হামলাকারীদের কবল থেকে রক্ষা পেতে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করেন ভুক্তভোগী পরিবার।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *