• এপ্রিল ১৭, ২০২১
  • Last Update এপ্রিল ১৪, ২০২১ ১:১২ অপরাহ্ণ
  • বাংলাদেশ

উজিরপুরে এ্যাডঃ শহিদুল ইসলাম মৃধাকে পুনরায় চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় ইউনিয়নবাসী

উজিরপুরে এ্যাডঃ শহিদুল ইসলাম মৃধাকে পুনরায় চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় ইউনিয়নবাসী

বরিশালের উজিরপুরে আসন্ন বড়াকোঠা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে বিশিষ্ট সমাজসেবক, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক, দানবীর, ন্যায়পরায়ন, শিক্ষিত, মার্জিত, সাংগঠনিক, আওয়ামীলীগের পরিক্ষিত নেতা, গরীব দুখী মানুষের প্রিয়-আস্থাভাজন, সফল ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাডঃ শহিদুল ইসলাম মৃধাকে পুনঃরায় চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় ইউনিয়নবাসী। তিনি পুনরায় আওয়ামীলীগের মনোয়ন পেয়ে চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হয়ে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শকে অনুসরণ করে জনগণের খেদমত করে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। এদিকে অধিকাংশ ভোটাররা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে এবং উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার জন্য তাকে পুনরায় ভোট প্রদান করে বিজয় করার অঙ্গিকার করে জোট বেধেছে।

স্বনামধন্য ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাডঃ শহিদুল ইসলাম মৃধা ইতিমধ্যে বড়াকোঠা ইউনিয়নের প্রতিটি এলাকায় রাস্তা, ঘাট, শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানের ব্যপক উন্নয়ন মুলক কাজ করেছেন। এছাড়াও ইউনিয়নের প্রতিটি এলাকায় মাদক, সন্ত্রাস, বাল্য বিবাহ ও জঙ্গিবাদ মুক্ত হয়েছে। একমাত্র তিনি ওই ইউনিয়নের আওয়ামীলীগকে সুসংঘঠিত রেখেছেন। তাই দলীয় ক্রন্দন নেই। তার ভালবাসায় কাদে কাদ মিলিয়ে সকল নেতাকর্মীরা রাজনৈতিক কর্মকান্ডে অংশগ্রহন করে থাকেন। তিনি চেয়ারম্যান হওয়ায় গরীব দুখী মানুষ শেষ আশ্রয়স্থল খুঁজে পেয়েছে। প্রতিটি অসহায় পরিবার সঠিক ভাবে পাচ্ছে সরকারের সকল ধরনের সহায়তা। আসন্ন ১১ এপ্রিল বড়াকোঠা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে তাকে পুনরায় ভোট প্রদান করে বিজয় করবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন ভোটাররা। তাকে ছাড়া অন্য কোন প্রার্থীকে ভাবতে পারছেনা ভোটাররা।

চায়ের দোকান, হাট-বাজারসহ বিভিন্ন স্থানে প্রতিদিন তার গুনকীর্তন করছে জনগন। তাকে ইউপি চেয়ারম্যান হিসেবে পুনরায় নির্বাচিত করার লক্ষ্যে ভোটাররা ইতিমধ্যে বিভিন্ন জল্পনা কল্পনা শুরু করেছে। মাদক,সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ,বাল্যবিবাহসহ সকল অপরাধমুলক বিষয়ে প্রতিবাদী নামে সুপরিচিত হয়েছেন তিনি। অসহায় মানুষরা তাকে ডাক দিলেই নাগালে পাচ্ছে। মহামারি করোনাকালীন সময়ে সরকারের পাশাপাশি তিনি গরীব দুখী মানুষের পাশে থেকে নিজস্ব অর্থায়নে বিভিন্ন সময় সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়ে মানবতার ফেরিওয়ালা উপাধী পেয়েছেন। কৃষকরা পাচ্ছে বিভিন্ন সাহায্য সহযোগিতা। তিনি ৫ বছর ধরে বেশ সুনামের সহিত বড়াকোঠা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

ইউনিয়নকে উন্নয়নের দ্বার প্রান্তে নিয়ে প্রশংসার দাবীদার হয়েছেন। তার বিরুদ্ধে নেই কোন দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ। একাধিক ভোটার জানান তিনি সৎ, মার্জিত, উচ্চ শিক্ষিত, ভদ্র স্বভাবী , প্রতিবাদী হওয়ায় উন্নয়নের স্বার্থে তার বিকল্প নেই। তিনি ইউপি চেয়ারম্যান হিসেবে পুনরায় নির্বাচিত হলে সরকারের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকবে। রাস্তা ঘাট. শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানের ব্যাপক উন্নয়ন হবে এবং হতদরিদ্ররা ভিজিডি,ভিজিএফ,বয়স্কভাতা, বিধবাভাতাসহ সরকারের সকল ধরনের সহায়তা সঠিক ভাবে ভোগ করতে পারবে। সুবিধা বঞ্চিত হবেনা গরীব দুখী মানুষ। যোগ্য পাত্রে অন্ন দান করার দাবী ভোটারদের। এছাড়াও তিনি যোগ্যতার মাপকাঠীতে প্রাপ্ত সকল পদেই সুনামের সহিদ দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এক প্রবীন শিক্ষক জানান তিনি পুনরায় নির্বাচিত হলে কোন প্রভাবের কারণে অন্যায়কারীরা পার পাবেনা।

সমাজের অপরাধের হার পুরোপুরি কমে যাবে। শিক্ষিত সমাজ ও ডিজিটাল ইউনিয়ন হবে। ২য় বারের মত বড়াকোঠা ইউনিয়ন পরিষদের আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী এ্যাডঃ শহিদুল ইসলাম মৃধা ভোটারদের বাড়ীতে বাড়ীতে গিয়ে প্রতিদিন পুনরায় ভোট প্রার্থনা ও দোয়া কামনা করছেন। ভোটারদের মধ্যে তিনি পুনরায় ব্যাপক সাড়া পেয়েছেন। জনসমর্থনে এগিয়ে রয়েছেন। চেয়ারম্যান হিসেবে আওয়ামীলীগের মনোয়ন পেলে এবং অবাধ, সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ন ভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলে শতভাগ তার বিজয় নিশ্চিৎ বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এছাড়াও তিনি সরকারের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার জন্য বড়াকোঠা ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে পুনরায় আওয়ামীলীগের মনোয়ন পাওয়ার দাবী জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও দক্ষিণ বঙ্গের রাজনৈতিক অভিভাবক আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ,বরিশাল ২ আসনের সংসদ সদস্য মোঃ শাহে আলম,উজিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের সদস্য এস.এম জামাল হোসেন,সাধারন সম্পাদক ও পৌর মেয়র মোঃ গিয়াস উদ্দিন বেপারীসহ নেতৃবৃন্দের সু-দৃষ্টি কামনা ও দোয়া প্রার্থনা করেছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *