• নভেম্বর ২০, ২০১৯
  • Last Update নভেম্বর ১৯, ২০১৯ ৮:১০ অপরাহ্ণ
  • বাংলাদেশ

নরসিংদীর ৫টি স্বর্ণের দোকানে ডাকাতি, ৯০ ভরি স্বর্ণ ও ১৫ লক্ষ টাকা লুট

নরসিংদীর ৫টি স্বর্ণের দোকানে ডাকাতি, ৯০ ভরি স্বর্ণ ও ১৫ লক্ষ টাকা লুট

নরসিংদীর পলাশ উপজেলার ঘোড়াশাল বাজারে ৫টি স্বর্ণের দোকানসহ ১টি চাউল এর দোকানে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। সোমবার (০ ৪ নভেম্বর) দিবাগত রাত ১টা থেকে ৪টা পর্যন্ত এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানান, রাত ১টার দিকে ঘোড়াশাল বাজারে আইন শৃঙ্খলাবাহিনী (ডিবি পুলিশ) পরিচয় দিয়ে ৩টি স্পিডবোট করে ২৫ থেকে ৩০ জনের ডাকাত দল হানা দেয়। এসময় বাজারের নাইট গার্ডসহ ১২ জন দোকানির হাত পা বেঁধে পাশের একটি দোকানে নিয়ে আটকে রাখে।


বাজারের ব্যবসায়ীরা জানান, ডাকাত দলের সদস্যরা মা শিল্পালয়, মল্লিক শিল্পালয়, মুসলিম জুয়েলার্স, জনতা গহণালয় ও প্রিয় জুলেলার্সের ৫টি স্বর্ণের দোকানে লুটপাট চালায়। সাথে ফারুক এন্ড বাদার্সের চাউলের দোকান ভাংচুর করে। পরে তারা প্রায় ৪ ঘন্টা ডাকাতি শেষে স্পিডযোগে নদী পথে পালিয়ে যায়। স্বর্ণের দোকানে থাকা দুই জন কর্মচারী ডাকাত দলের হামলায় আহত হয়েছে। তাদের স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়।


এ ঘটনার পর সকালে নরসিংদী পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদার, পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ নাসির উদ্দিন, ওসি তদন্ত মোঃ গোলাম মোস্তফা, জেলা ডিবি পুলিশ ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর অন্যান্য বিভাগের কর্মকর্তরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।


এসময় নরসিংদী পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদার বলেন, ডাকাত দল নৌপথে স্পিড বোর্ডে এসে নৌশ স্পিডবোট প্রহরীদের আটক করে ৫টি স্বর্নের দোকানে হিট করে। ২টি দোকানে কর্মচারী ছিল। ৩টি দোকানের ভল্ট ভেঙ্গে ৮০ থেকে ৯০ ভরি স্বর্ণ, ২ শ’ থেকে সাড়ে ৩ শ’ ভরি (আরো কম বেশি হতে) রুপা ও আনুমানিক ১৫ লক্ষ টাকা লুট করে নিয়ে আবার নদী পথে পালিয়ে যায়। প্রাথমিক ভাবে আমরা ধারনা করছি। সংঘবদ্ধ ডাকাত চক্র এ ব্যাপারে কোন সন্দেহ নেই। এই এলাকায় এমন ঘটনা অতীতে ঘটে নাই। যারা এই ঘটনার সাথে জড়িত থাকুক ডাকাত চক্রকে আমরা ধরতে সক্ষম হবো। আমরা তাদের ধরতে ইতিমধ্যে কাজে নেমেছি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *