• জুন ২৭, ২০২২
  • Last Update জুন ২৪, ২০২২ ১১:৫৫ পূর্বাহ্ণ
  • বাংলাদেশ

কোর্টের নোটিশ অমান্য করে মাটি কাটাঁ নিয়ে বিরোধকে হিন্দু মুসলিম দাঙ্গায় পরিনত করতে লিপ্ত কুচক্র একটি মহল

কোর্টের নোটিশ অমান্য করে মাটি কাটাঁ নিয়ে বিরোধকে হিন্দু মুসলিম দাঙ্গায় পরিনত করতে লিপ্ত কুচক্র একটি মহল

কোর্টের নোটিশ অমান্য করে মাটি কাটাঁ নিয়ে বিরোধকে

হিন্দু মুসলিম দাঙ্গায় পরিনত করতে লিপ্ত কুচক্র একটি মহল

উজিরপুর উপজেলা ওটরা ইউনিয়নের কেশবকাঠীতে এ পি মামলার নং: ৫৪/১৯ ফৌঃ কাঃ বিঃ ১৪৪/১৪৫ দ্বারায় উজিরপুর মডেল থানা কতৃক নোটিশ প্রদান করা হলেও আদালতের আইন অমান্য করে একর পর এক অনিয়ম, কখোন গাছ ভেঙ্গে অবার কখোন মাটি কেটেঁ। বাধা দিতে গেলে উত্তেজনা মূলক আচরনে হয় মারা মারি। গত ৩১ মার্চ মঙ্গল বার নোটিশকৃত জমিতে মাটি কাটাঁ বিরোধকে হিন্দু মুসলমান দাঙ্গায় পরিনত করতে লিপ্ত হয় কুচক্র।
কেশবকাঠী (৪নং ওয়ার্ড) স্থানীয় মল্লিক বাড়ী’র মোঃ জিয়াউর রহমান টুটুল (৪০), পিতা: তাছেন মল্লিক’এর ক্রয়কৃত কেশবকাঠী মৌজার জে এল নং: ২০, এস এ খতিয়ান: ৬৯৬, এস এ দাগ নং: ৪৮২ যাহার ডিপি খতিয়ান নং: ১২৯২, দাগ নং: ১২২০/১২২১ মোট ২.১৫ একর সম্পত্তির মধ্যে ৪১ শতাংশ ক্রয়কৃত এবং জে এল নং:২০, এস এ খতিয়ান ৬৯৭, এস এ দাগ নং: ৪৮৫, খতিয়ান নং: ১২৯২, ভিপি দাগ নং: ১১৩৩, মোট সম্পত্তির পরিমান ২.১৬ একরের মধ্যে ১৮ শতাংশ ক্রয়কৃত সম্পত্তি দির্ঘ্যদিন যাবত ভোগ দখল করে আসছে।
এক দুষ্ট চক্র নেপথ্যে থেকে বিগত অনেক দিন যাবত এ সম্পত্তি জোড়পূবর্ক দখলের পায়তা করে আসছে এবং এ নিয়ে বেশ কয়েকবার স্থানীয় ভাবে শালিস মিমাংসা হয়, এমনকি উজিরপুর মডেল থানার সাবেক অফিসার ইনচার্জ শিশির কুমার পাল’এর উপস্থিতিতে স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিতের নিয়ে সামজিক ভাবে সমাধা করা হয়। সামাজিক চাপে সাময়িক ভাবে এ দুষ্ট চক্র কিছু দিন চুপ থাকলেও নেপথ্যে থেকে আর খারাপ ভাবে নীলনকশা আকঁতে থাকে তারা। এবং জমি দখলের পায়তারা চলমান রাখে।
তারই দ্বারাবাহিকতায় ১ম পক্ষ মোঃ জিয়াউর রহমান টুটুল(৪০) কতৃক বর্নিত আদালতের এ পি মামলার নং: ৫৪/১৯ ফৌঃ কাঃ বিঃ ১৪৪/১৪৫ দ্বারায় উজিরপুর মডেল থানা কতৃক নোটিশ প্রদান করা হয়। কিন্তু আদালতের আইন অমান্য করে, হঠাৎ গত ২৭ মার্চ গভির রাতে ভোগকৃত জমিতে রোপনকৃত প্রায় ৫০-৬০টা গাছ পালা ভেঙ্গে জোর তোর হুমকি দামকি ভয় ভিতি দেখিয়ে জমি দখলের চেষ্টা করে ১. রুস্তম শেখ, পিতা: মৃত হাসেম আলী শেখ, ২. নিতাই বাড়ৈ, পিং নিরঞ্জন বাড়ৈ, ৩. শুখরঞ্জন বাড়ৈ, পিং: মৃত. কার্তিক বাড়ৈ, ৪. লিখন বাড়ৈ, পিং: শুখরঞ্জন বাড়ৈ, ৫. ধনঞ্জন বাড়ৈ, পিং: ধলু বাড়ৈ, ৬.কল্পনা বাড়ৈ স্বামী: শুখরঞ্জন বাড়ৈ, ৭, জোছনা বাড়ৈ, স্বামী: গৌরঙ্গ বাড়ৈ, ৮. কবিতা বাড়ৈ, স্বামী: নিতাই বাড়ৈ।
এব্যপারে এসকল অবৈধ দখলদারদের হাত থেকে বাচঁতে উপরক্ত নামধারীদের আসামী করে ফের বরিশাল জেলা ম্যেজিস্টেট আদালতে মোঃ জিয়াউর রহমান টুটুল বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। যাহার অনুলীপী উজিরপুর মডেল থানা ও উপজেলা নিবার্হী অফিসার এবং উপজেলা নিবার্হী ভূমি অফিসারের দপ্তরেও দেওয়া হয়।
এ অভিযোগের জের ধরে গতকাল ৩১শে মার্চ মঙ্গল বার সকাল আনুমানিক ১০টায় একই এ পি মামলার নং: ৫৪/১৯ ফৌঃ কাঃ বিঃ ১৪৪/১৪৫ দ্বারায় উজিরপুর মডেল থানা কতৃক নোটিশকৃত জমিতে আবার মাটি কাটাঁ শুরু করে , ১. নিতাই বাড়ৈ, পিং নিরঞ্জন বাড়ৈ, ২. শুখরঞ্জন বাড়ৈ, পিং: মৃত. কার্তিক বাড়ৈ, ৩. লিখন বাড়ৈ, পিং: শুখরঞ্জন বাড়ৈ, ৪. কল্পনা বাড়ৈ স্বামী: শুখরঞ্জন বাড়ৈ, ৫. জোছনা বাড়ৈ, স্বামী: গৌরঙ্গ বাড়ৈ, ৬. কবিতা বাড়ৈ, স্বামী: নিতাই বাড়ৈ।
তখন ১ম পক্ষ মোঃ জিয়াউর রহমান বাধা দিতে গেলে ২য় পক্ষ তার উপর চড়াও হয়ে গালা গালি শুরু করে। দুই পক্ষের উত্তেজনা মূলক আচরনে হাতা হাতি ও মারা মারির সৃষ্টি হয়। এতে তেমন বড় ধরনের কোন সমস্যা না হলেও দুই পক্ষের মোঠ ১০ জন আহত হন। কিল ঘুষিতে আহত হন মোঃ জিয়াউর রহমানের, এবং তার পক্ষ কথা বলতে গিয়ে উপর্যপরি কিল, ঘুষি, লাথি খেয়ে গুরুত্বর আহত হন ১. মোতাহার মল্লিক (৮০), পিতা: মৃত. মফেজ মল্লিক, ২. শহীদ মল্লিক(৫০), পিতা: আফেজ মল্লিক, ৩. লাঠির অঘাতে আহত হন গৃহপরিচালীকা মাসুদা বেগম(৩২) স্বামী: আলমগীর মল্লিক, ৪. গৃহপরিচালীকার ৭ বছরের সন্তান পাখি’কে ছিটকে মারায় এতে শিশুটির হাত ভেঙ্গে যায়। আহতরা উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন।
অন্য দিকে ২য় পক্ষেরও ১. গৌরাঙ্গ বাড়ৈসহ কয়েকজন কম বেশি আহত হয়েছে। কিন্তু এখানে তৃতীয় কোন কুশক্তি নেপথ্যে থেকে এ দুই পক্ষের মাঝে আর বেশি ঝামেলা পাকানোর  চেষ্টা করছে। এছাড়াও সংখ্যালঘু হিন্দু মুসলমানের দির্ঘ্যদিনের ভ্রাতিত্ব বন্ধনকে দাঙ্গায় পরিনত করতে লিপ্ত এ কুচক্র। এব্যপারে থানা পুলিশসহ প্রশাসনের বিশেষ ভাবে লক্ষ রেখে সামাজিক শান্তি রক্ষায় কঠোর ব্যবস্থা গহনের আহবান জানান স্থানীয়জন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.