• নভেম্বর ২৭, ২০২২
  • Last Update নভেম্বর ২৫, ২০২২ ৭:৪২ অপরাহ্ণ
  • বাংলাদেশ

সমবায় কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অফিস ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগ

সমবায় কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অফিস ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগ

বেতাগী (বরগুনা) প্রতিনিধি বরগুনার বেতাগী উপজেলার সমবায় কর্মকর্তা জগলুল হায়দারের অফিস ফাঁকি এখন নৈমিত্তিক হয়ে দাড়িয়েছে। বরগুনা জেলা সমবায় অফিসে কাজের কথা বলে প্রায়শই তিনি অফিসে থাকেন না বলে অভিযোগ রয়েছে। নাম প্রকাশে অনেচ্ছুক একাধিক সমবায় সমিতির সদস্য জানান অফিসে কোন কাজে আসলে তাকে পাওয়া যায়না। এতে উপজেলায় অবস্থিত ১২৬টি সমবায় সমিতির বিভিন্ন দাপ্তরিক কাজ ব্যহত হচ্ছে। সমবায় সমিতিগুলো অচল হয়ে পরেছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টা বাজলেই তিনি আর অফিসে থাকে না বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সমবায়ীরা। রবিবার অফিসে আসতে আসতে দুপুর ১২টা বেজে যায় তার। বরগুনা জেলা সদরে তার বাড়ি হওয়ায় নতুন বিল্ডিং এর কাজ করেন আর অজুহাত দেন বরগুনা জেলা অফিসের কাজের। এমনই আরও অভিযোগ নাম না প্রকাশ করার শর্তে সমবায় সমিতির কয়েকজন নেতার। এদিকে এ অভিযোগে উপজেলা পরিষদ সমন্বয় সভায় তাকে সাবধান করাও হয়েছে। তিনি তা তোয়ক্কা না করে এভাবে দিনের পর দিন অফিস ফাঁকি দিয়েই যাচ্ছেন। একজন কর্মকর্তার দায়িত্বে অবহেলার জন্য উপজেলার ১২৬টি সমবায় সমিতি থাকলেও কার্যকারিতা নেই অর্ধেক সমিতির। উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা জগলুল হায়দার এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন বরগুনা জেলা সবায় অফিসে কাজে এসেছি। উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মাকসুদুর রহমান ফোরকান বলেন আমিও তাকে কোন সময় অফিসিয়াল কাজে পাইনা। এমন কি কোন জাতীয় দিবসেও তাকে পাওয়া যায় না। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাজিব আহসান বলেন বিষয়টি আমি ক্ষতিয়ে দেখব এবং উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করব।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *