• জানুয়ারি ৩০, ২০২৩
  • Last Update জানুয়ারি ১২, ২০২৩ ৬:২৯ অপরাহ্ণ
  • বাংলাদেশ

উজিরপুরে আটিপাড়া ফাজিল মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটি গঠন নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ

উজিরপুরে আটিপাড়া ফাজিল মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটি গঠন নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ

উজিরপুর প্রতিনিধিঃ উজিরপুরের আটিপাড়া ফাজিল মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটি গঠন নিয়ে অনিয়ম ও দুর্নিতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্থানীয় সুত্রে জানা যায় অত্র মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মোবারক আলী ফারুকি নিজের স্বার্থ হাসিল করার জন্য বার বার পকেট কমিটি গঠন করে অনিয়ম ও দুর্নীতির পাহাড় তৈরি করেছে। স্থানীয়রা প্রতিবাদ করলেও তিনি তার ইচ্ছেমত সকল কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছেন। ২০১৯ সালে ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনে অভিভাবক সদস্য হিসেবে এস.এম দেলোয়ার হোসেনকে অভিবাবক সদস্য নির্বাচিত করায় ক্ষোভে ফেটে পরে এলাকাবাসী। কেননা তার মেয়ে আয়শা ছিদ্দিকা দোলা আটিপাড়া মিরা বাড়ী নুরানি ও হাফেজিয়া মাদ্রাসায় হেফজ শাখায় চতুর্থ শ্রেণিতে পরাশুনা করছে। কমিটির অভিভাবক সদস্য হওয়ার জন্য অধ্যক্ষ’র পরামর্শে মেয়েকে নাম মাত্র ভর্তি দেখানো হয় ঐ মাদ্রাসায়। ২০ জুলাই সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় ঐ শিক্ষার্থী আটিপাড়া মিরা বাড়ী নুরানি ও হাফেজি মাদ্রাসায় ক্লাস করছে। শিক্ষার্থী আয়শা বলেন আমি এই মাদ্রাসায় লেখা পড়া করিতেছি তবে আটিপাড়া ফাজিল মাদ্রাসায়ও ভর্তি হয়েছি। এ ব্যাপারে আটিপাড়া মিরা বাড়ী নুরানি হাফেজিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওঃ হাবিবুর রহমান জানান এই শিক্ষার্থী আমাদের মাদ্রাসায় নিয়মিত ক্লাস করছে। তবে অন্য কোথাও ভর্তি আছে কিনা আমার জানা নেই। আটিপাড়া ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মোবারক আলি ফারুকি বলেন ম্যানেজিং কমিটির সদস্য নির্বাচনে কোন অনিয়ম হয়নি। সব কিছুই বৈধ ভাবে হয়েছে। সাবেক ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ও বামরাইল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান কবির ও সাবেক ম্যানেজিং কমিটির সদস্য মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার হোসেন তালুকদার জানান এবারের কমিটি নিয়মতান্ত্রিক ভাবে হয়নী। অধ্যক্ষ মনগড়া সিদ্ধান্ত নিয়ে একটি পকেট কমিটি করেছে। অভিভাবক সদস্য হিসেবে এস.এম দেলোয়ার হোসেনকে নেয়া হয়েছে শুনেছি। তার মেয়ে কখনো এই মাদ্রাসায় ক্লাস করেনি। এমনকি এস.এম দেলোয়ার হোসেন অপর ম্যানেজিং কমিটির সদস্য জাহাঙ্গির হোসেনের ফরমে সমর্থনকারী হিসেবে স্বাক্ষর করেছেন। একই ব্যাক্তি কমিটির সদস্য হতে পারেনা। তাই এই অবৈধ কমিটি বাতিল করে পুনরায় ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনের দাবী জানান এলাকাবাসী।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *