• জুন ২৮, ২০২২
  • Last Update জুন ২৪, ২০২২ ১১:৫৫ পূর্বাহ্ণ
  • বাংলাদেশ

জমে উঠেছে গ্রামগঞ্চের অত্যাধুনিক শপিংমল ঈদের কেনাকাটা

জমে উঠেছে গ্রামগঞ্চের অত্যাধুনিক শপিংমল ঈদের কেনাকাটা

খোকন আহম্মেদ হীরা, বরিশাল ॥ ঈদ-উল ফিতরকে সামনে রেখে শহরের আদলে বরিশালের গৌরনদী পৌর সদরের পল্লী বিদ্যুত জোনাল অফিসের সামনে নবনির্মিত অত্যাধুনিক ভাই ভাই শপিংমলের উদ্বোধণ করা হয়েছে। ঈদের দিন যতোই ঘনিয়ে আসছে ততোই গ্রামগঞ্চের শৌখিন ক্রেতাদের অজপাড়া গাঁয়ের অত্যাধুনিক শপিংমলে ভীড় বারতে শুরু করেছে।
গৌরনদীসহ পাশ্ববর্তী উপজেলার শৌখিন ক্রেতাদের প্রতিবছরের ন্যায় যেন আর শহরের মার্কেটগুলোর ওপর ভরসা করে থাকতে না হয়, সে পরিকল্পনায় “ভাই ভাই শপিংমল” নামের সু-বিশাল দ্বিতল ভবনের অত্যাধুনিক শপিংমলটি নির্মান করা হয়েছে। এ শপিংমল নির্মানের উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন ভোলা সাহা নামের রুচিশীল এক ব্যবসায়ী। সরেজমিনে দেখা গেছে, শপিংমলের প্রতিটি দোকানে বাহারি রঙের পোশাক দিয়ে সাজানো হয়েছে। লেহেঙ্গা, থ্রিপিস, শার্ট, জিন্স-টপস, শাড়ি, পাঞ্জাবি, জামা-পাজামা, বিভিন্ন অলংকার, কসমেটিক্সসহ নানা ধরনের দেশী-বিদেশী পোশাক ও বাহারি শাড়ি দিয়ে সাজানো হয়েছে প্রতিটি দোকান।
সম্পূর্ণ শীতাতপ নিয়ন্ত্রতিত শপিংমলের দ্বিতীয় তলায় গৌরনদীর একমাত্র বাটা শো-রুমটি সাজানো হয়েছে নতুন কালেকশনের জুতা ও স্যান্ডেল দিয়ে। শপিংমলের ক্রেতাদের দৃষ্টি আকৃষ্ট করার জন্য ব্যবসায়ীরা দোকানে ঈদের নতুন পোশাক সাজিয়েছেন। নতুন পোশাককে ফুটিয়ে তোলার জন্য ব্যবসায়ীরা বেবিডল ও বিভিন্ন ধরনের স্ট্যান্ড ব্যবহার করেছেন। শপিংমলের প্রথমেই নজরে আসে দেশী-বিদেশী নতুন কালেকশন নিয়ে সাজানো ভাই ভাই বস্ত্র বিতানের সু-বিশাল শাড়ির শো-রুম। দাম সাধ্যের মধ্যে থাকায় নিন্ম ও মধ্যবিত্ত পরিবারের লোকজনও অজপাড়া গাঁয়ের বৃহত এ শপিংমলে ঈদের কেনাকাটা করার জন্য ভীড় করছেন।
শপিংমলের রেডিমেড পোশাকের দোকানিরা জানান, ঈদকে সামনে রেখে তারা বেবিডলের মাধ্যমে দোকানগুলোতে হাসিমুখে ঠায় দাঁড়িয়ে থাকা ফ্রক, ফ্লোর টাচ, লেহেঙ্গা, থ্রি-কোয়ার্টার, জিন্স-গ্যাবার্ডিনের হাফ প্যান্ট দিয়ে সাজিয়েছেন। শপিংমলের প্রতিটি দোকান ঘুরে এমনটাই দেখা গেছে। ব্যবসায়ীরা আরও জানান, ক্রেতাদের দৃষ্টি আকৃষ্ট করার জন্য তারা দোকানে ঈদের নতুন পোশাকে সাজিয়েছেন। ঈদের নতুন পোশাককে ফুটিয়ে তোলার জন্য তারা বেবিডল ও বিভিন্ন ধরনের স্ট্যান্ড ব্যবহার করেছেন।
একাধিক শৌখিন নারী ক্রেতারা জানান, প্রতিবছর তারা ঈদের কেনাকাটার জন্য ঢাকা ও বরিশালের মার্কেটগুলোতে যেতেন। এতে করে তাদের সময় ও অর্থ দুটোই বেশি ব্যয় হতো। এবছর গৌরনদীতেই শীতাতপ নিয়ন্ত্রতিত অত্যাধুনিক শপিংমলে দেশী ও বিদেশী নতুন কালেকশনের পোশাক, শাড়ি, জুতাসহ অন্যান্য পন্য সামগ্রী পাওয়ায় তারা আগের মতো সময় ও অর্থ ব্যয় করে দূরের শপিংমলগুলোতে যাচ্ছেন না। তারা আরও জানান, উন্নতমানের দেশী-বিদেশী পোষাক, শাড়িসহ অন্যান্য মালামালের দামও তাদের নাগালের মধ্যে রয়েছে।
শপিংমলের মালিক ভোলা সাহা জানান, দীর্ঘদিন থেকে অজপাড়া গাঁয়ের শৌখিন ক্রেতাদের শহরের মার্কেটগুলোর ওপর ভরসা করে থাকতে হতো। এতে করে শৌখিন ক্রেতাদের বিভিন্ন ধরনের হয়রানী ও দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। তাই শহরের মার্কেটের ওপর ভরসা করেই যেন কাউকে থাকতে না হয় সেই পরিকল্পনা নিয়েই “ভাই ভাই শপিংমল” নামের সু-বিশাল দ্বিতল ভবনের অত্যাধুনিক শপিংমল নির্মান করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, কোন মালামালেই যেন অতিরিক্ত দাম রাখা না হয় সেজন্য শপিংমলের প্রতিটি ব্যবসায়ীকে কঠোর নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। ঈদের দিন যতোই ঘনিয়ে আসছে শপিংমলে ততোই ক্রেতাদের ভীড় বেড়ে চলছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.