• জুন ২৯, ২০২২
  • Last Update জুন ২৪, ২০২২ ১১:৫৫ পূর্বাহ্ণ
  • বাংলাদেশ

হত্যার পর কব্জি কেটে ফেলে রাখা রেললাইনের ওপর কলেজ ছাত্রের  লাশ।

হত্যার পর কব্জি কেটে ফেলে রাখা রেললাইনের ওপর কলেজ ছাত্রের  লাশ।
হত্যার পর কব্জি কেটে ফেলে রাখা রেললাইনের ওপর কলেজ ছাত্রের  লাশ।
মিজানুর রহমান: পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলায় হত্যার পর রেললাইনের ওপরে মেহেদী হাসান সুমন হোসেন (২০) নামে এক কলেজছাত্রের মরদেহ ফেলে পালিয়েছে দুর্বৃত্তরা।
সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ঈশ্বরদী-ঢাকা রেলরুটের মুলাডুলি স্টেশনের অদূরে মাঝগ্রাম-দুর্বাচরা ৬নং রেলওয়ে ব্রিজের ওপর থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।
নিহত মেহেদী হাসান পাবনা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিল। তিনি দাশুড়িয়া ইউনিয়নের মদিনাতুল উলুম মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক আইনুল হকের ছেলে।
মুলাডুলি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন মিঠু জানান, ছেলেটি আলিম পাস করার পর পাবনা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিল। কারও সঙ্গে কোনো শত্রুতা তেমন ছিল না। হত্যার পর কে বা কারা লাশটিকে রেললাইনের ওপর ফেলে রেখে যায়।
তার শরীরের মুখে ও গলায় বিভিন্ন স্থানে আঘাতের ক্ষত চিহ্ন রয়েছে। এ ছাড়া ডান হাতের কব্জি কাটা অবস্থায় রেললাইনের পাশে পড়ে থাকতে দেখা যায়। পারিবারিক শত্রুতার জের ধরে কেউ এ হত্যা করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করেছে।
ঈশ্বরদী থানার ওসি বাহাউদ্দীন ফারুকী জানান, রেলওয়ে অঞ্চল হওয়ার কারণে বিষয়টি ঈশ্বরদী রেলওয়ে জিআরপি পুলিশের আওতায় পড়ে। তারা মরদেহ উদ্ধার করে সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠাবে। ময়নাতদন্ত শেষে নিহতের পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.